সম্পর্ক নাকি অন্ধত্ব

bn2 য়তয়থ্র

যতো দূর যাবে বন্ধু আমার-

ততটাই পথ হব সঙ্গী তোমার।

মেঘ-ঝড়-বৃষ্টিতে-

অথবা আঁধার এলে,

মনে রেখ আমি আছি-সঙ্গে তোমার।

যতো দুর যাবে বন্ধু আমার।

সম্পর্ক আসলে এমনি, যার কোন এপিঠ ওপিঠ নেই, যার সাথে কোন হিসেব-নিকেশনেই, সম্পর্ক ঠিক এমনি যা কোন গভীর-অগভীরতায় পরিমাপ করা নেই, যার আদি-অন্ত নেই, সীমা নেই-সীমানা নেই।

এবার একটা গল্পের ছবি আঁকি। একটু নির্ভরতার গল্প আঁকি। সত্য, কিন্তু অন্য রকম। “টাইটানিক” বিশাল এই জাহাজটি ডুবে যাবার আগে এক বিত্তবান মহিলাকে লাইফ বোটে তুলে দেয়া হল। হঠাৎ তিনি চিৎকার করে বলতে থাকলেন তাকে যেন একবার তার রুমে যেতে দেয়া হয় কারণ তিনি কিছু ফেলে এসেছেন। লোকেরা তাকে যেতে দিতে চাইল না, কিন্তুঅনেক অনুরোধের পর তাকে তিন মিনিট সময় দেয়া হল। যদি তিনি তিন মিনিটের মধ্যে না আসেন তাহলে অন্য কাউকে বোটে তুলে নেয়া হবে। বোট থেকে নেমে মহিলা দৌড়ে তার রুমে গেলেন। তিনি অনেক দামি দামি স্বর্নের মূর্তি, আসবাবপত্র অতিক্রম করে তার টেবিলের কাছে গেলেন। টেবিলের উপরে রাখা ক্যাশ ডলার আর দামি জুয়েলারীর ব্যাগটি না ধরে তিনি ড্রয়ার খুলে তিনটি কমলা বের করলেন। মহিলা বুঝতে পেরেছিলেন ঐ সব দামি অলংকার বা ডলারের বদলে লাইফ বোটে ঐ তিনটি কমলাই তার জীবন বাঁচাতে পারে।

মজার বিষয় হল, এক ঘন্টা আগেও যা তার কাছে মূল্যহীন ছিল এখন তা মূল্যবান হয়ে উঠল। এবং এক ঘন্ট আগে যা মূল্যবান ছিল এখন তা মূ্ল্যহীন হয়ে গেল।

আসলে সময় এবং পরিস্থিতি আমাদের বলে দেয় কোনটি মূল্যবান; সরবরাহ এবং চাহিদা আমাদের বলে দেয় আসলে কোনটি গুরুত্বপূর্ণ।

এবার আসি মূল প্রসঙ্গে, আমাদের সম্পর্কে; আজ যার সাথে পরম নির্ভাবনায়-নির্ভরতায় পথ চলা, একান্তে যাকে আপন করে নেয়া সেকি শুধুই অন্ধ মোহে? অন্য এক অসম-সমীকরণ? নাকি তরলে গরল-নাকি আত্মার জাগরন?

আচ্ছা, আমাদের সৃষ্টিকর্তার সাথে আমাদের কেমন সম্পর্ক? যাকে দেখা যাবে না শুধু অনুভব করে নিতে হবে আত্মার শুদ্ধতায়। যেখানে ক্ষমা আছে, প্রেম আছে, নির্ভরতা আছে, যেখানে সত্য ও সুন্দরতা আছে।

কথা দিলাম, সে পথে যেতে যত বাধা আসুক মনে রেখ, কেউ এক জন আলো জ্বেলে সাথে আছে তোমার।

 

Follow me

You may also like...